আন্তর্জাতিক সিসা দূষণ প্রতিরোধ সপ্তাহ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

দ্বারা Updates Stkhira
০ মন্তব্য 49 দর্শন

 

আজ (বৃহস্পতিবার) বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে খুলনায় আন্তর্জাতিক সিসা দূষণ প্রতিরোধ সপ্তাহ-২০২২ পালিত হয়। এ উপলক্ষে সকালে খুলনা মেডিকেল কলেজের সম্মেলনকক্ষে সচেতনতামূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা পিওর আর্থ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

সিটি মেয়র বলেন, সাধারণ মানুষ বিশেষত শিশুদের জন্য সীসা মারাত্মক ক্ষতিকর। তাই সীসা নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ভূমিকা গ্রহণে স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্ব নিয়ে কাজ করা উচিৎ। তিনি বলেন, স্বাস্থ্যকর নগরী গড়তে হলে সীসার ক্ষতি থেকে খুলনাবাসীকে রক্ষা করতে হবে। যেসব মাধ্যমে সীসা ছড়ানোর সম্ভাবনা আছে তা খুঁজে বের করতে তিনি উপস্থিত সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এক্ষেত্রে গণসচেতনতা গড়ে তোলার ওপরও মেয়র গুরুত্বারোপ করেন।

খুলনা স্বাস্থ্য দপ্তরের পরিচালক ডাঃ মোঃ মঞ্জুরুল মুরশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সিভিল সার্জন ডাঃ সুজাত আহমেদ, খুলনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ দীন উল ইসলাম, উপাধ্যক্ষ ডাঃ মেহেদী নেওয়াজ, ইউনিসেফের প্রধান মোঃ কাওসার হোসেন এবং পিওর আর্থ এর কান্ট্রি ডিরেক্টর মোঃ মাহফুজার রহমান।

ICDDRB এর লীড এ্যান্ড প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর মোঃ মাহবুবুর রহমান ভিডিও উপস্থাপনা করেন। উপস্থাপনায় বলা হয়, বাংলাদেশের প্রায় ৩ কোটি ৬০ লক্ষ শিশুর রক্তে মাত্রাতিরিক্ত সীসার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। সীসা ০-৬ বছর বয়সী শিশুদের বেশী ক্ষতি করে থাকে। সীসা একটি শক্তিশালী নিউরোটক্সিন যা শিশুদের মস্তিষ্কে অপুরণীয় ক্ষতি করে থাকে। এর ফলে হার্ট, লিভার, কিডনিসহ পরিপাকতন্ত্র বিশেষভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। মূলত সীসার কারণে মাথাব্যাথা, মনোসংযোগ ব্যহত হওয়া ছাড়াও স্নায়ু বিষয়ক সমস্যা যেমন অস্থিরতা, খিচুনী অবসাদগ্রস্ততা ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দেয়।

সভায় সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, চিকিৎসক, শিক্ষক প্রতিনিধি ও স্কুলের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

০ মন্তব্য

আরও পোস্ট পড়ুন

মতামত দিন