আশাশুনির কপোতাক্ষ নদে ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ ৩ শ্রমিকের পরিবারকে সহায়তা প্রদান করলেন জেলা প্রশাসক


 

আশাশুনিতে কপোতাক্ষ নদে ইঞ্জিন চালিত ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ ৩ শ্রমিকের মৃতদেহ ৩৬ ঘন্টা পরও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও আশাশুনি উপজেলা চেয়ারম্যান ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও তদন্ত টিম গঠন করেছেন।

উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কুড়িকাহনিয়া আম্পানের আঘাতে কপোতাক্ষ নদের পাউবো’র ভাঙ্গনকৃত বেড়ীবাঁধ সংকার কাজ চলাকালে গত মঙ্গলবার ভোর ৬ টার সময় ক্লোজারের কাজে নিয়োজিত ১২ জন শ্রমিক ট্রলারে নদী পার হচ্ছিল।

এ সময় প্রবল স্রোতের তোড়ে ট্রলার ডুবে গেলে ৯ জন উদ্ধার হয়, কিন্তু বাকী ৩ জন শ্রমিক নিখোঁজ রয়ে যায়। পরবর্তীতে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরীদল তাদের উদ্ধারে চেষ্টা করলেও সম্ভব হয়নি। গতকাল বুধবার সকাল থেকে নীলডুমুর বিওপি ক্যাপ থেকে কোস্টগার্ড উদ্ধার কাজে যোগ দিয়েও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত খোঁজ মেলেনি।

সকালে জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল ও উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং নিখোঁজ শ্রমিকদের পরিবার প্রতি ১০ হাজার করে টাকা, ৫০ কেজি চাউল ও কম্বল বিতরণ করেন এবং আরো সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দেন।

এছাড়া কাজের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে নিখোজ পরিবারের সহায়তা প্রদানের নির্দেশ দেন। ঘটনা তদন্তের জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এসময় ইউএনও মীর আলিফ রেজা, ভাঙ্গন এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল ও শেখ জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page