ঘর পেলো সাতক্ষীরা ঘোনার সেই সেওতি


 

 

শারীরিক সীমাবদ্ধতাকে সে কাটিয়ে উঠতে চেয়েছিলো শিক্ষা নিয়ে । কারো বোঝা না-হয়ে নিজের ইচ্ছা শক্তি ও মনোবল নিয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে চেয়েছে সে।
তিনি সাতক্ষীরার সদর উপজেলার সেই শিক্ষিত শারিরীক প্রতিবন্ধী অসহায় শেওতি।

শেওতির স্বপ্নপূরণে এগিয়ে এসেছে বাংলাদেশ এডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এসোসিয়েশন (BASA) সাতক্ষীরার ২৪ কর্মকর্তা।

তাদের পক্ষ থেকে শেওতিকে দেওয়া হয়েছে বসবাসের জন্য ঘর, ল্যাপটপ, নুতন ২ সেট কাপড়, মিষ্টি ও ফুলসহ আগামী ৬ মাসের খাদ্য ছাড়াও অনলাইনে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা  করাও হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) বিকেলে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনায় জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আনুষ্ঠানিক ভাবে গৃহহীন শাহিমা সুলতানা শেওতিকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে গৃহ হস্তান্তর করা হয়।


আনুষ্ঠানিক ভাবে গৃহ হস্তান্তর করেন সাতক্ষীরা এডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এসোসিয়েশন এর সভাপতি ও জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল।

এসময় জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল বলেন,
প্রধানমন্ত্রী মুজিববর্ষে গৃহহীনদের জন্য ঘর প্রদান করেছেন এই মহৎকর্মে অনুপ্রাণিত হয়ে আমরা বাংলাদেশ এডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এসোসিয়েশন BASA সাতক্ষীরার সদস্যরা ঘরটির নির্মান খরচ বহন করেছি।এসময় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (পদন্নোতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক)  দেবাশীষ চৌধুরী  সহ জেলা প্রশাসনের সকল নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ উপস্থিত ছিলেন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page