লক ডাউন বাস্তবায়নে মাঠে নেমেছেন যশোরের ডিসি ও এসপি


 

করোনা সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করা, সরকারি বিধি-নিষেধ কঠোরভাবে প্রতিপালনের লক্ষ্যে জেলা পুলিশের আয়োজনে সচেতনতামূলক কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ১৩ জুন ২০২১খ্রিঃ দুপুর ১৪.২০ ঘটিকায় যশোর শহরের ব্যস্ততম এলাকা দড়াটানা মোড়ে জেলা পুলিশের আয়োজনে সর্বসাধারণের মধ্যে করোনা সংক্রান্তে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার লক্ষ্যে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হয়। উক্ত সচেতনতামূলক প্রচারণায় উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলার  জেলা প্রশাসক  মোঃ তমিজুল ইসলাম খান ও পুলিশ সুপার জনাব প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিপিএম(বার), পিপিএম। 

এসময় দড়াটানা মোড়সহ শহরের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি রাস্তায় করোনা সংক্রান্তে সচেতনতা বৃদ্ধি ও সর্বসাধারণের অবাধ চলাচল নিয়ন্ত্রণে পুলিশি টহল, চেকপোস্ট এবং সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হয়।

এসময় পুলিশ সুপার বলেন, যশোর শহরে কঠোর বিধি নিষেধের আজ ৪র্থ দিন অতিবাহিত হচ্ছে। আমরা এই বিধি-নিষেধ বাস্তবায়নে জেলা পুলিশ, প্রশাসন, স্বাস্থ্যবিভাগ সহ বিভিন্ন সংস্থার সদস্যবৃন্দ সমন্বিতভাবে কাজ করে যাচ্ছি। অতি সম্প্রতি যশোর সদর ও অভয়নগর পৌর এলাকায় করোনা সংক্রমণের হার কিছুটা বৃদ্ধি পাওয়ায় ওই সকল এলাকা গুলোতে কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এছাড়া গ্রাম-গঞ্জেও বিভিন্ন ভাবে সংক্রমণ ঠেকাতে সর্বসাধারণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কাজ করে যাচ্ছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশ সুপার  বলেন, আসন্ন কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে গরুর হাট গুলোতে কঠোর স্বাস্থ্য-বিধি মেনে চলার জন্য যতটুকু আইন প্রয়োগ করা দরকার তার সবটুকুই করবে জেলা পুলিশ।একই সাথে সঠিক নিয়মে মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য যশোরবাসীর কাছে বিনীত আহবান জানান।

উক্ত কর্মসূচিতে আরো উপস্থিত  মোহাম্মদ জাহাংগীর আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, জেলা বিশেষ শাখা যশোর,  মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, “ক” সার্কেল, যশোর,  মোঃ তাজুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা, বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ, বিভিন্ন সামাজিক সংস্থার কর্মীবৃন্দ সহ জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page