সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় করলেন প্রেসক্লাব সদস্য যাচাই বাছাই ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটি


 

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় করলেন প্রেসক্লাব সদস্য যাচাই বাছাই ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে গতকাল সকাল এগারটার সময় কমিটির আহবায়ক সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম (বার) এঁর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় কমিটির অপরাপর সদস্য জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি সহকারি কমিশনার নুরুল আমিন, এনএসআই সাতক্ষীরার উপ-পরিচালক জাকির হোসেন ডিজিএফআইএর প্রতিনিধি শরিফুল ইসলাম জেলা নির্বাচন অফিসার নাজমুল কবির, যাচাই বাছাই ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম বার

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের অবাধ বিচরন, মুক্তচিন্তা, মর্যাদা, সম্মান, এর ক্ষেত্র সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সাতক্ষীরা বাসির আস্থার জায়গা, তিনি বলেন আমাদের লক্ষ্য প্রকৃত সাংবাদিকদের অংশ গ্রহনে অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং প্রকৃত সাংবাদিক যাচাই বাছাই করা, সব কিছুর উর্ধে দেশের সংবিধান আর আদালত সংবিধান দ্বারা স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান, আমরা নাগরিকরা আদালতের নির্দেশনা, আদেশ মানতে বাধ্য, আমি সহ কমিটির অপরাপর সদস্য ও প্রেসক্লাবের সুষ্ঠ অবাধ, অংশগ্রহনমুলক নির্বাচন সম্পন্ন ও সদস্য যাচাই বাছাই করতে আদালত কর্তৃক নির্দেশিত এবং স্বীকৃত। আমরা আদালতের নির্দেশেই এসেছি, আদালতের নির্দেশ আদেশ না মানার মানসিকতা যারা পোষন করেন বা করবেন তারা নিশ্চই আদালতের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করবেন, যা কাঙ্খিত নয়, আদালত কর্তৃক নির্দেশিত কমিটি প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র মোতাবেক সদস্য যাচাই বাছাই পরবর্তি সুষ্ঠ নির্বাচনের ব্যবস্থা করবে।

মত বিনিময় সভায় তিনি আরও বলেন প্রেসক্লাব চলবে সদস্যদের দ্বারা, কোন বিশেষ মহল বা সিনিয়র বা ব্যক্তি কেন্দ্রীকতায় নয় সাংবাদিক জাতির বিবেক অবশ্যই সাংবাদিকরা কোন অন্যায় ব্যবস্থা মেনে নিতে পারে না।

সাতক্ষীরার সাংবাদিকদের ভূয়সী প্রশংসা করে আহবায়ক ও পুলিশ সুপার আরও বলেন সাতক্ষীরার সাংবাদিকরা অবশ্যই অন্যায়, অসত্য, দুর্নিতীর বিরুদ্ধে লেখনি অব্যাহত রাখবেন সেই সাথে সাতক্ষীরার উন্নয়ন, অগ্রগতির বিষয়টি লেখার মাধ্যমে এগিয়ে নিবেন।

তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন সাংবাদিকতার ন্যায় মহান পেশায় থেকে আমরা যেন নিজেরা নিজেদের বিরুদ্ধে অবস্থান না নিই। যাচাই বাছাই সহ ভোটার তালিকা হাল নাগাত করতে সরবরাহ করা ফরম পুরন পরবর্তি আগামী চার ডিসেম্বরের মধ্যে প্রেসক্লাব সচিব বরাবর আমরা বিশেষ শাখায় জমা দেওয়ার আহবান জানান।

মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন কমিটির সদস্য সহকারি কমিশনার নুরুল আমিন, এনএসআই সাতক্ষীরা উপপরিচালক জাকির হোসেন, ডিজিএফআই প্রতিনিধি শরিফুল ইসলাম, জেলা নির্বাচন অফিসার নাজমুল কবির, এর পূর্বে প্রেসক্লাবে আসলে আহবায়ক পুলিশ সুপার সহ কমিটির অপরাপর সদস্যদের স্বাগত জানান প্রেসক্লাবের সদস্যরা।

মত বিনিময় সভায় সাংবাদিকরা বক্তব্যে বলেন আদালত এর আদেশে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সদস্যদের মাঝে স্বস্তি ফিরেছে, সদস্যরা অবাধ, অংশগ্রহন মুলক নির্বাচনের সুযোগ পেতে যাচ্ছে। দীর্ঘদিন যাবৎ ভোটার তালিকা, সদস্যভূক্তি, গ্র“পিং মহল বিশেষের খবরদারি, নবীনদের সদস্যপদ প্রদানে প্রতিবন্ধকতা, কমিটি পাল্টা কমিটি সহ প্রেসক্লাব তার মর্যাদা, সম্মান হারাতে বসেছিল। সদস্যরা অসম্মানজনক পরিস্থিতির সম্মুখিন হচ্ছিল, আদালতের রায়ে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সৃষ্ট সমস্যা, অচলাবস্থা সহ সব ধরনের প্রতিবন্ধকতার কবল হতে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সম্মান এবং মর্যাদাশীল প্রতিষ্ঠানে পরিনত হতে চলেছে। সদস্যরা পুলিশ সুপারের নেতৃত্বাধীন সদস্য যাচাই বাছাই ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রতি সম্মান আস্থা প্রদর্শন করেন।

মত বিনিময় সভায় সদস্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মাদ আলী সুজন, মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জ্বল, মোজাফফর রহমান, আবু তালেব মোল্ল্যা, অসীম চক্রবর্তী জাহাঙ্গীর কবির, রাজিব, ইদুজ্জামান ইদ্রিস, মোস্তাফিজুর রহমান, ফারুক মাহবুবুর রহমান, রেজাউল করিম, শেখ তৌহিদুর রহমান ডাবলু, খন্দকর আনিস, মতিয়ার রহমান মধু, মাসুদুজ্জামান সুমন, জাকির হোসেন মিঠু, সৈয়দ মহিউদ্দীন হাসেমী তপু, মীর আবু বকর, শহিদুল ইসলাম, হাসান গফুর, আবু সাইদ, গোলাম মোস্তফা প্রমুখ।

সুত্র : দৃষ্টিপাত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page