জেলা ট্রাফিক পুলিশ ও সদর থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে ১৯ টি মটর সাইকেল জব্দ : মামলা ৪৮ টি


 

বসে নেই সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ। সাতক্ষীরা বাইপাস সড়ক বর্তমানে মটরসাইকেল এক্সিডেন্টের কেন্দ্রবিন্দু। উঠতি বয়সের তরুণরা প্রতি নিয়ত সড়ক দূর্ঘটনায় বাইপাস রোডে প্রাণ হারাচ্ছে।ঝরছে অসহায় পিতা-মাতার চোখের পানি।বাইপাসে সড়ক দূর্ঘটনা রোধে ঈদের পরের দিন বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেছে সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ ও সাতক্ষীরা জেলা ট্রাফিক পুলিশ।

সাতক্ষীরা জেলা ট্রাফিক পুলিশের সুত্র জানায় ০২ আগষ্ট রবিবার বিকালে  সাতক্ষীরা বাইপাস সড়কের বিভিন্ন স্থানে (বিনেরপোতা, লাবসা, খড়িবিলা, বকচারা ও অন্যান্য) সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ এবং ট্রাফিক পুলিশের যৌথ উদ্যোগে চেকপোস্ট পরিচালনা করা হয়।সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম(বার) এঁর দিক নির্দেশনা মোতাবেক  উক্ত চেকপোস্ট অভিযানের নেতৃত্ব দেন সাতক্ষীরা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মির্জা সালাহ্উদ্দিন ।সদর সার্কেলের নেতৃত্বে  অভিযানে অংশ নেন সাতক্ষীরা ট্রাফিক পুলিশের ভারপ্রাপ্ত টিআই হাসান মল্লিক,  সদর থানার পরিদর্শক তদন্ত আবুল কালাম আজাদ,ট্রাফিক সার্জেন্ট শুভ্র, ট্রাফিক সার্জেন্ট মামুন,ট্রাফিক সার্জেন্ট মুকুল, টিএসআই জাহিদ, এটিএসআই সুশীল প্রমুখ।

অভিযানে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো,হেলমেট বিহীন গাড়ি চালানো,ওভারলোডিং,
ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত গাড়ি চালানো,রেজিস্ট্রেশন বিহীন গাড়ি চালানো ও অন্যান্য অপরাধে মোট ৪৮ টি মামলা করা হয় এবং ১৯ টি গাড়ি জব্দ করা হয়।

এবিষয়ে সাতক্ষীরা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মির্জা সালাহ্উদ্দিন বলেছেন, অভিযানে মোটরযান চালক ও মালিকদের অপরাধ নিয়ন্ত্রণে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ কে সহায়তা করার জন্য , ব্যক্তিগত নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং সর্বোপরি ট্রাফিক আইন মেনে মোটরযান চালানোর জন্য সকল কে অনুরোধ করা হয়েছে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *