মা কে নিয়ে অনুভুতি ব্যক্ত করলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব খায়রুল আলম সেখ

দ্বারা zime
০ মন্তব্য 151 দর্শন

 

 বিশ্ব মা দিবসে মা কে নিয়ে অনুভুতি ব্যক্ত করেছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব খায়রুল আলম সেখ।বিশ্ব মা দিবসে তিনি তার ফেইজবুক আইডিতে রত্নগর্ভা মা কে নিয়ে এক আবেগময় কবিতা লিখেছেন। কবিতাটি হুবাহু তুলে ধরা হলো –

বিষয়টি নজরে আসে কিছুক্ষণ আগে অনেকের পোস্ট দেখে। গতবছর মাকে নিয়ে অনুভুতি ব্যক্ত করেছিলাম একটি কবিতায় যা অনেকে পছন্দ করেছিলেন। মা দিবসে এই মুহূর্তে সেটিই শেয়ার করছি।

‘আমার মা।
—মো: খায়রুল আলম সেখ।

মাগো তুমি কোথায় গেলে একলা পথে চলে,
কেমন করে থাকো তুমি একা মোদের ভুলে;
তোমার বাড়ি তোমার ঘর তোমার সবই ফেলে
কোত্থাও তুমি পারনা থাকতে ওসব কিছু ভুলে।
তোমার যখন ইচ্ছে হতো দেখবে সবার মুখ
অমনি তুমি ভুলে যেতে আপন মাটির সুখ;
পণ করতে প্রথম তোমার আসতে হবে ঢাকা
মাগুরা যশোর খুলনা হয়ে সবাইকে চাই দেখা;
ঈদ আকিকা জন্মদিন আঁকত্ আর বৌভাত
মসজিদ মাদ্রাসা দান-খয়রাত ফিতরা ও যাকাত
দিবা নিশি রোজা-নামাজ তসবিহ ও কালাম
প্রতিবেশীর খোঁজ-খবর আদাব ও সালাম;
এই তোমার কর্মসূচি সারা বছর ব্যাপী
এতটুকু করতে পেলেই তুমি ছিলে হ্যাপী।

শেষবার যখন ঢাকার বাসায় দীর্ঘ হলো থাকা
শাওলিন জাওয়াদ শৈলি তোমার সুখ-আদরে মাখা;
তোমার যত মনের কথা গভীর আবেগময়,
পারভিনের সাথে অবিরত করতে বিনিময়।
মাছের মাথা ছোট বেলায় আমায় দিতে তুলে,
বিয়ের পরে বৌমা এলো আমায় গেলে ভুলে।
বাসায় এলে মজার খাবার তোমার মনের মতো,
রান্না করে বৌমা তোমায় খাওয়ায় নিয়মিত।
তোমার প্রিয় ডা: সোহেল বিয়ের অনুষ্ঠান
ডা: নিপা নাতবৌ তোমার খুশিতে আটখান।

খুলনা থেকে রেবেকা এলো লাবনী-রিপন,
ওদের দেখে মনটা তোমার অস্থির বিলক্ষণ;
বললে তুমি তিন মাস সময় কাটিয়ে দিলাম বাবা,
বাড়ি ঘরের কী হাল হয়েছে তাহা জানে কে’বা;
আম কাঁঠাল নারিকেল গাছে ফল ধরেছে প্রচুর
ডাল সরিষা বোরো ধান পেঁকে হবে চুর;
সবার জন্য পাঠাতে হবে আমি যদি না থাকি,
বর্গাতিরা সুযোগ বুঝে সবই দিবে ফাঁকি ।
তিন দিন পরে বললে আমায় অনুমতি চাই,
খুশি মনে বিদায় দিলে খুলনা যেতে চাই।
সেথায় আমার লুৎফর আছে ওঁকে একবার দেখে,
মাগুরা হয়ে বাড়ি ফিরবো সজলের মাকে রেখে।
মুক্তা থাকে একা বাড়ি মামুন যায় স্কুলে,
বুকটা বড় ফাঁকা লাগে ওদের একা ফেলে।
রোকেয়া গেছে সেই কবে নূরজাহানও যায়,
ভালো থেকেও সুখে নেই জাহানের কী যে হয়।

তোমার যখন মন ছুটেছে আটকাতে কি পারি,
শীঘ্র আবার চলে এসো যদি না যেতে পারি।
সময় মতো ওষুধ খেও যখন যেটা লাগে,
ফোন করলে পৌঁছে দিবে হানিফ আগেভাগে।

ক’দিন বাদে চীনে আমি ২৫ দিনের ট্যুরে
মাঝ পথে ফোন পেয়ে আমার মাথা গেল ঘুরে;
বৌ বলছে মা সিরিয়াস ঢাকা আনতে হবে
বলি তাকে ট্রেনিং ফেলে আসছি আমি চলে।
ঢাকা মেডিক্যাল, বঙ্গবন্ধু, মহাখালী করে,
তিনটি মাস মাকে নিয়ে কেঁদেছি অঝোরে।
ডাক্তার বলেন বাসায় নিয়ে সুরা-কালাম পড়ে
আল্লাহর তরে দোয়া করুন যদি রহম করে।
সেঝ আপা বলতো আমায় মার হয়েছে কী রে !
আমি জানি, জানে আল্লাহ মা আসবেনা ফিরে!
ক’দিন বাদে হারিয়ে গেলে দূর আকাশের গায়,
কত স্মৃতি তোমায় নিয়ে সে কি ভুলা যায়।
লক্ষ কোটি তারার মাঝে কোন্ তারাটি আমার মা !
মা দিবসে তোমরা কেউ আমাকে বলে দিবে না ?😢
১০মে,২০২০ খ্রি:/ঢাকা।

লেখক: মো: খায়রুল আলম সেখ,অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন অনুবিভাগ) সুরক্ষা সেবা বিভাগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

০ মন্তব্য

আরও পোস্ট পড়ুন

মতামত দিন