পৌর দীঘিতে মৎস্য শিকারের উদ্বোধন করলেন সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান

দ্বারা zime
০ মন্তব্য 260 দর্শন

 

বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেও সাতক্ষীরা পৌর দিঘিতে শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) বসেছে শৌখিন মৎস্য শিকারিদের মিলনমেলা। কারণ, এ দিন সাতক্ষীরা পৌরসভা আয়োজন করে মৎস্য শিকার প্রতিযোগিতা। এতে অংশ নিয়ে ভোর থেকে মাছ ধরায় মেতে উঠেন দুই শতাধিক মৎস্য শিকারি। এ মাছ ধরা দেখতে সকাল থেকে ভিড় জমেছে উৎসুক জনতার। এমন উৎসাহের মধ্যে বেলা সাড়ে ১১টায় আনুষ্ঠানিকভাবে মৎস্য শিকারের উদ্বোধন করেন জেলা পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান পিপিএম।

সাতক্ষীরা পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র কাজী ফিরোজ হাসানের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি মো. মহিদুল ইসলাম, জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি তারেক ফয়সাল ইবনে আজিজ, ডিআইও-১ ইয়াছিন আলম, সময় টিভির জেলা প্রতিনিধি মমতাজ আহমেদ বাপী, পৌর কাউন্সিলর শেখ জাহাঙ্গীর হোসেন কালু, শেখ শফিক উদ দৌলা সাগর, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এহসান হাবীব অয়ন প্রমুখ।

সাতক্ষীরা পৌরসভা সূত্র জানায়, প্রতি বছরই মাসজুড়ে এই মৎস্য শিকার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এই প্রতিযোগিতায় মৎস্য শিকারিরা একটি টিকিটের বিনিময়ে চার শুক্রবার মাছ ধরার সুযোগ পাবেন। ১২ হাজার টাকা মূল্যের টিকিট কেটে এ বছর অর্ধ শতাধিক শিকারি মাছ শিকার করছেন।

সাতক্ষীরা পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র কাজী ফিরোজ হোসেন বলেন, প্রতি বছর মৎস্য শিকারিদের নিয়ে সাতক্ষীরার ঐতিহ্যবাহী পৌর দিঘিতে বড়শি দিয়ে মাছ শিকার প্রতিযোগিতা হয়ে থাকে। তবে দীর্ঘ চার বছর নানা কারণে দিঘিতে মাছ শিকার বন্ধ ছিল। চার বছর পর শিকারিরা দিঘিতে মাছ শিকারের সুযোগ পেয়েছেন। তাই একরকম উৎসব হচ্ছে।

শিকারি রবি  বলেন, এ বছর ১২ হাজার টাকা মূল্যে টিকিট কাটা লেগেছে। মাছ যাই পাই না কেন, এটা মূলত শখ পূরণের জন্য। এক টিকিটে চারটি শিপ ফেলা যাবে।
তিনি আরও বলেন, আবহাওয়া খারাপ হওয়ার কারণে মাছ টোপে কামড় দিচ্ছে না। এ বছর মাছ উঠছে খুব কম।সারা দিন বসে কয়েকজন কয়েকটি ৫-৬ কেজি ওজনের মাছ পেয়েছে। বাকিরা এখনো শূন্য হাতে আছে।





০ মন্তব্য

আরও পোস্ট পড়ুন

মতামত দিন