সাতক্ষীরা কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদুল আজহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত

দ্বারা zime
০ মন্তব্য 70 দর্শন

আব্দুর রহিম : মুসলমানদের বৃহৎতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা। মুসলিম উম্মাহর ঐক্য,শান্তি, সমৃদ্ধি, ভ্রাতৃত্ববোধ অটুট করে। বৃহৎতম এই ধর্মীয় উৎসবে ধনী, গরিব সব মানুষের মনপ্রাণ  ঈদের আনন্দ উচ্ছ্বাসে মিলে যায়। প্রবৃত্তির দাসত্ব, লোভ-লালসা, হিংসা-বিদ্বেষসহ মনের পশুত্বকে পরাভূত করার শিক্ষা দেয় কোরবানির। মহান আত্মত্যাগ, আত্মসমর্পণ এবং নিজেকে উৎসর্গ করার মহিমায় উদ্ভাসিত মুসলিম উম্মাহর বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা।

আল্লাহ তায়ালার প্রতি অপার আনুগত্য এবং তারই রাহে সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের এক ঐতিহাসিক ঘটনার স্মরণে মুসলিম বিশ্বে ঈদুল আজহা উদযাপিত হয়ে আসছে। মুসলিম জাতির পিতা হজরত ইব্রাহিম (আ.)-এর আত্মত্যাগ ও অনুপম আদর্শের প্রতীকী নিদর্শন হিসেবে কোরবানির রেওয়াজ। আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের নির্দেশে হজরত ইব্রাহিম (আ.) তার প্রাণপ্রিয় পুত্র হজরত ইসমাইলকে (আ.) কোরবানি করতে উদ্যত হয়েছিলেন।

এই অনন্য ঘটনার স্মরণে কোরবানি প্রচলিত হয়।  আরবি ‘কুরবান’ শব্দ থেকে কোরবানি। এর অর্থ—ত্যাগ, উৎসর্গ, বিসর্জন, নৈকট্যলাভ। পরিভাষায় একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টি ও নৈকট্যলাভের উদ্দেশ্যে নির্দিষ্ট দিনে, নিদিষ্ট সময়ে, নির্দিষ্ট ব্যক্তির পক্ষ থেকে নির্দিষ্ট পশু জবেহ করাকে উযহিয়্যা বা কোরবানি বলে। মনের পশু অর্থাৎ কুপ্রবৃত্তিকে পরিত্যাগ করা।

মূলত আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য প্রয়োজনে নিজের প্রিয় বস্তুকে কোরবানি দেওয়ার প্রস্তুতির শিক্ষাই এ ঈদের আদর্শ। আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে দ্বিধাহীনভাবে তার কাছে আত্মসমর্পণ এবং তার নির্দেশ শর্তহীনভাবে মেনে নেওয়াই হলো ঈদুল আজহার প্রকৃত শিক্ষা দেয়।পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সাতক্ষীরা মুনজীতপুর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে ১৭ই জুন সোমবার সকাল সাড়ে ৭টায় ঈদুল আজহার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

হাফেজ খতিব জালাল উদ্দিনের ইমামতিতে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেন শত শত মুসল্লিরা। বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির। এসময় উপস্থিত ছিলেন  অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোঃ সরোয়ার হোসেন।  কেন্দ্রীয় ঈদগা কমিটির সহ-সভাপতি শেখ নিজাম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ নাজমুল হক বকুল, মাওলানা আফসার উদ্দিন, আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের উদ্বোধন কর্মকর্তারা , জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ, হাফেজ, আলেম-ওলামা সহ ধনী ,গরিব , সর্বস্তরের মুসলিম উম্মাহ।

এসময় মহান আল্লাহর কাছে ঈদুল আজহা নামাজের দোয়া মোনাজাতের মধ্যে চোখের পানি ছেড়ে দিয়ে দুহাত তুলে মুসলিম উম্মাহ জন্য দেশ ও জাতির কল্যাণ সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া মোনাজাত করা হয়। পরবর্তীতে একই স্থানে একাডেমী মসজিদে ঈদুল আজহা জামাত সকাল সাড়ে ৮ টায় অনুষ্ঠিত হয়।





০ মন্তব্য

আরও পোস্ট পড়ুন

মতামত দিন