দেবহাটায় করোনা আতঙ্কের মাঝেই স্কুলছাত্রীর বিয়ের আয়োজন ভেঙে দিলেন ইউএনও সাজিয়া আফরিন

দ্বারা zime
০ মন্তব্য 739 দর্শন

 

আকরামুল ইসলাম: চারিদিক করোনা আতঙ্ক। এরই মধ্যে গোপনে বিয়ের আয়োজন চলছিল নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীর। তবে ঘটনাটি দৃষ্টিতে আসায় তাৎক্ষণিক বিয়ে বন্ধ করে বর ও কনে পক্ষকে জরিমানা করেন সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরিন।
জানা গেছে, দেবহাটার পারুলিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আবু সাঈদের গোপনে পারিবারিকভাবে বিয়ের আয়োজন করা হয়। শুক্রবার দুপুরে পারুলিয়া বাসস্টান্ড সংলগ্ন এলাকায় ওই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে সম্পন্ন হচ্ছিল বিয়ের আনুষ্ঠাণিকতা।
দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা জানান, থানা পুলিশের কাছে সংবাদ আসে গোপনে স্কুলছাত্রীর বিয়ের কার্যকম চলছে। পরে ঘটনাস্থলে থানার ফোর্স পাঠানো হয়। প্রথমে ছেলে ও মেয়ে পক্ষের পরিবার বিয়ের বিষয়টি অস্বীকার করে। তবে বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে ইউএনওকে ঘটনাটি অবহিত করা হয়।
দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরিন বলেন, দেশের এই দূর্যোগকালীন সময়ে এধরনের আয়োজন দুঃখজনক। ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে মেয়ে পক্ষকে ১০ হাজার ও ছেলে পক্ষকে সাত হাজার টাকা জরিমানা করে বিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।





০ মন্তব্য

আরও পোস্ট পড়ুন

মতামত দিন